আমার মন চার কোণ

আমার মন চার কোণ, উপরে নিয়া আসমান
না চিনি আমারে, না চিনি তোমারে, চিনি তোমার দয়া রে
যেই গাছেরে যতন কর তারেই মারো ফলাইয়া ধান অঘ্রাণে
জমিন রে কি আছে তোমার অন্তরে?

ঘরের ভিতর ঘর তার ভিতরে সংসার গড়াইছ গায়গতরে  
দিয়াছ আশা আন্ধারে ভাগ বাটিয়া ঘরেঘরে
সেই আশায় জ্বালাইলাম  আলো এখন দেখি না তোমারে
হায়রে কি আছে তোমার সে নজরে?

আচলে বান্ধ চাবি, দরজা বন্ধ শিকলে 
জোছনা রাইতে খোপা বান্ধ পরাণ ঘুমায় শিয়রে
তবু বিষের জ্বালায় ছটফটায় একলা কইতর অন্তরে   
কি সাপে দংশিল লক্ষ্মীন্দর তোমারে?  

যেই ফুলে হয় মানব জন্ম সেই ফুলেতে মন্দ
কার দলে কে নাচে ভাল তারে নিয়া দ্বন্দ্ব 
আবার যার ভিতরে জ্ঞানের আলো তারেই করলা অন্ধ
তোমার কোন রাস্তা খোলা বল, কোন রাস্তা বন্ধ?   

ঝড়ে বাতি নিভুনিভু কাপে যে অন্তর ডরে
তাও একজনের নাও ভাসাইলা জোয়ারে
আরেকজন মরিল খাটে সে ছিল আদরে
বল কি দোষ করিল তোমার বিচারে?  

যেই জমিনের দলিল করলাম, বছর যাইয়া খাজনা দিলাম
সেই জমিনই করলা নিলাম দেখি আমার নাই দুইআনা দাম
মাটির উপরের ঘর ভাঙিয়া গড়াইলা ঘর কবরে
কি জবাব আছে তোমার কারবারে?

কলমে – ঈষদ


About Author /

Start typing and press Enter to search