করোনা-ভাইরাস

করোনা-ভাইরাস কেউতো দেখেনি, শুনিয়া ধরিল ভয়

কারোনার হাতে ধরাশায়ী হলে ধরণী ডাকিয়া কয়

যত আছে তোর ধন দৌলত, সব যদি বেচা হয়

পারবে কি তুমি তোমায় বাঁচাতে, করোনা করিতে জয়।

এই শুনে তবে নাহি কলোরবে, ভেবে সব তন্ময়

নিজেরে বলেছি বড্ড কিছু, আসলেতো কিছু নয়।

করোনা কহে, কি আছে তোমার সৎকাজ সঞ্চয়

আমার মত ক্ষুদ্রের ভয়ে হারিয়েছো চিম্ময়।

সবাই বলে সাবধানে থেকো, করোনা আসেনা যাতে

মুখোশ পরিয়া চলাফেরা করো, মিশোনা কাহারো সাথে

এই শুনে সবে মৃত্যু ভয়ে থরথর করে কাঁপে

ধনে আর জ্ঞানে কে কার বড়, কেউ নাহি কিছু মাপে

জীবাণুর ভয় কেন এতো হয়, কোন পাপে অভিশাপে

মানুষের যত দম্ভ অহং, পুড়িতে অনলে ঝাঁপে।

মনে পড়ে বারেবারে

মানুষের যত লোভ লালসা তেড়ে আসে নিজ ঘাড়ে

করোনার চেয়ে লালসা কীট, আরো বেশি ভয়ানক

সেই লালসায় ধর্ষণ আর পরকীয়া সং-ক্রামক

এই রোগ থেকে বাঁচার মুখোশ, আছে কি কাহারো কাছে?

করোনার চেয়ে এই রোগে জগত, অধিক সর্বনাশে।

নোংরা হৃদয় সাফ না হলে সমাজ কি করে বাঁচে??

…………………………

আশেক মাহমুদ
সহকারী অধ্যাপক
সমাজ বিজ্ঞান বিভাগ
জগন্নাথ বিশ্ব বিদ্যালয়, ঢাকা

About Author /

Start typing and press Enter to search